ঈদে চমক দেখাবে বেরি ন্যুড শেড

করেছে Rodoshee

লেখাঃ সুরাইয়া নাজনীন

ছবিঃ ওমর ফাকুর টিটু

জানা- অজানায় প্রকৃতি সবসময় প্রতিনিধিত্ব করে। ফ্যাশনের ক্ষেত্রেও তার ব্যতিক্রম নয়। হালফ্যাশনের যুগে কড়া নজর এবার লিপস্টিকের দিকে। তাও আবার বেরি শেডের। এ ধারণা অবশ্যই প্রকৃতি থেকে নেওয়া। বেরি শেডের লিপস্টিক লুক পাল্টায় খুব দ্রুত। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে ন্যুড শেড। ঈদের জন্য রং বাছা শুরু হয়ে গেছে লিপস্টিকের। লিপস্টিক নিয়ে নানা রকম এক্সপেরিমেন্ট করাই হালফ্যাশনের রীতি। তাহলে এবারের ঈদে বেরি ন্যুড শেড কি চমক দেখাবে? দেখে নাও!

এটি নব্বই দশকের চল হলেও মেকআপে পেয়েছে ক্লাসিক মর্যাদা। বেরি ন্যুড শেডের লিপস্টিক যেকোনো পোশাক, সময় ও বয়সভেদে মানানসই ঠিক তেমনি বর্ণ-নির্বিশেষে যেকোনো সাজের সঙ্গেও মানানসই। ন্যুড লিপস্টিক মানে কিন্তু একটা রং নয়, এর মধ্যেই রয়েছে রঙের ভিন্নতা। গোলাপি, লালচে, বাদামি, পিচ ইত্যাদি নানা রঙের আভায় ন্যুড লিপস্টিকের শেড অগণিত। তবে লিপস্টিকের রং যাই হোক না কেন, ত্বকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে এটা বাছতে হবে। যদি খুব ফরসা ত্বক হয় তাহলে হালকা গোলাপি টোনের বেরি শেড বেছে নাও। তোমার ত্বকের বর্ণ হলুদাভ হলে উষ্ণ বাদামি, কোরাল ও পিচ শেডগুলো খুব সহজে মানিয়ে যাবে। শ্যামলা বর্ণের ত্বকের জন্য ব্রোঞ্জ অথবা ক্যারামেল শেডের লিপস্টিকগুলো মানানসই। তবে ন্যুড লিপস্টিক পরার পর যদি তোমার সাজ খুব ফ্যাকাশে লাগে তাহলে বুঝবে তোমার শেডটি ত্বকের রঙের থেকে বেশি হালকা, সে ক্ষেত্রে ত্বকের রঙের চেয়ে গাঢ় লিপস্টিক বাছাই করো অথবা পুরো মুখের সাজে একটু ভিন্নতা আনো। ন্যুড লিপস্টিকের ক্ষেত্রে একটু সতর্ক হতে হবে। ক্রিমি টেক্সচারের লিপস্টিক ব্যবহারই এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে নিরাপদ। অনেক সময় ম্যাট ন্যুড লিপস্টিক ব্যবহারে ঠোঁট বেশ শুষ্ক দেখায়, ঠোঁটের ত্বকের ভাঁজগুলো দেখা যায়। তোমার ঠোঁট যদি পাতলা হয় তবে ফ্রস্ট টেক্সচার এড়িয়ে যাও নয়তো তোমার ঠোঁট আরও ছোট ও পাতলা দেখাবে। ঠোঁটের রঙে অসামঞ্জস্য থাকলে লিপস্টিক দেওয়ার আগে এক পরত ফাউন্ডেশন অথবা কনসিলার দিয়ে অসামঞ্জস্যটুকু ঢেকে ফেলো। ঠোঁটের রঙের সঙ্গে অথবা লিপস্টিকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে লিপ লাইনার পরো, তারপর পছন্দের লিপস্টিকটি দাও। এতে যেমন লিপস্টিকের স্থায়িত্ব বাড়বে, তেমনি তোমার ঠোঁটের রং আরও আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে।
ন্যুড লিপস্টিকের সঙ্গে স্বচ্ছ ক্লিয়ার অথবা একই শেডের লিপগ্লস তোমার ঠোঁটের সাজে আনতে পারে ভিন্ন মাত্রা।

আরও আকর্ষণীয় করতে হলে : ত্বকের যেমন যত্ন নেওয়া হয় একইভাবে ঠোঁটেরও আলাদা যত্ন নেওয়া জরুরি। নিয়ম করে এক্সফলিয়েট করা হলে ঠোঁটের মরা চামড়া পরিষ্কার হয়ে যাবে এবং এরপর অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। মেকআপের ক্ষেত্রে চেহারার যেকোনো একটি অংশকে ফুটিয়ে তোলা উচিত। তাই যদি ঠোঁটে গাঢ় রঙের লিপস্টিক লাগাতে চাও হবে অবশ্যই মুখ এবং চোখের মেকআপ হালকা করতে হবে। অন্যদিকে চোখে গাঢ় মেকআপ করলে ঠোঁটে হালকা রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করতে হবে। ঠোঁটে আলগা চকচকে উপাদানের ব্যবহার দেখতে বেশ বাজে লাগে। লিপস্টিকের ময়েশ্চারাইজার এবং এতে ব্যবহৃত উপাদানের কারণে ঠোঁটে বাড়তি চকচকে ভাব থাকলে তা দেখতে বেশ ভালো লাগে। কিন্তু ঠোঁটে মেটালিক বা জরির মতো ‘শিমার’ ব্যবহার এড়িয়ে চলা উচিত। ত্বকের রঙের সঙ্গে মানিয়ে লিপস্টিক বাছাই করা উচিত। একই রঙের লিপস্টিক একেক ত্বকে দেখতে ভিন্ন লাগতে পারে। তাই পছন্দের রং বাছাইয়ের ক্ষেত্রে কয়েকটি রং বাছাই করে তবেই মানানসই লিপস্টিক বাছাই করতে হবে। লিপস্টিক দীর্ঘস্থায়ী করতে প্রাইমার ব্যবহার করতে হবে। মেকআপের শুরুতে যেমন ত্বকে প্রাইমার ব্যবহার করতে হয় একইভাবে ঠোঁটেও প্রাইমার ব্যবহার করা উচিত। এতে লিপস্টিকের রং ফুটে উঠবে এবং অনেকক্ষণ স্থায়ী হবে। ঠোঁটের গঠন নিখুঁত করে তুলতে লিপলাইনার ব্যবহার বেশ জরুরি। ঠোঁট মোটা বা চিকন দেখানোর জন্য লিপ লাইনার বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ঠোঁটের মাঝখান থেকে লিপস্টিক লাগানো শুরু করতে হবে। এতে লিপস্টিক ছড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কাও কম থাকবে। তা ছাড়া গাঢ় লিপস্টিকের ক্ষেত্রে একটি ব্রাশ দিয়ে ঠোঁটে লাগালে তা আরও নিখুঁত হবে। ঠোঁটের চারপাশের রেখা বেশি নিখুঁত হলে দেখতে অস্বাভাবিক লাগতে পারে। এক্ষেত্রে চারপাশে খানিকটা হালকা স্মাজ করে নিলে দেখতে ভালো দেখাবে।

একের ভেতর দুই : ব্লাশ হিসেবে লিপস্টিক দারুণ কাজ দেয়। ভালো করে ব্লেন্ড করলে পাউডার ব্লাশের থেকে লিপস্টিক দেখতে অনেক বেশি ন্যাচারাল লাগে। আবার থাকেও অনেকক্ষণ। যদি লিপস্টিক শেষ হয়ে যেতে থাকে তাহলে গ্লস হিসেবে ব্যবহার করতে পারো। টিউব থেকে বের করে নাও বা লিপস্টিক ভেঙে স্ম্যাশ করে নাও। এবার এর সঙ্গে ভেসলিন মিশিয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে দারুণ গ্লস। ব্লাশারের মতোই আইশ্যাডো হিসেবেও দারুণ ভালো কাজ করে লিপস্টিক। প্রথমে ন্যুড লিপস্টিক দিয়ে আইশ্যাডো বেস করো। এরপর রঙিন লিপস্টিক দিয়ে আইশ্যাডো লাগাও। ক্রিম আইশ্যাডোর লুক দেবে লিপস্টিক।

০ মন্তব্য করো
0

You may also like

তোমার মন্তব্য লেখো

five + 15 =