ওজন হ্রাসে ইন্টারমিটেন্ট ফাস্টিং

করেছে Shaila Hasan

শায়লা জাহান

 

শরীর ও মনের সুস্থতার জন্য প্রত্যেকেরই হেলদি লাইফস্টাইল অনুসরণ করা দরকার। ওজনকে নিজ আয়ত্তে রাখতে কেবল শরীরচর্চা করলেই হবেনা, তার সাথে খাদ্যাভাসেও আনতে হবে ব্যাপক পরিবর্তন। আর এজন্য অনেকেই ডায়েটিংয়ের পথ অবলম্বন করে থাকে। এর মধ্যে ইন্টারমিটেন্ট ফাস্টিং অন্যতম। যদিও এই ধরনের ডায়েট নতুন নয়, বহু বছর আগে থেকেই চলে আসছে। ঝটপট ওজন কমাতে ইন্টামিটেন্ট ফাস্টিং বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

ফাস্টিং কি? এর উত্তর আমরা সবাই জানি। একটি নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে কোনও ক্যালোরি গ্রহন না করা, অর্থাৎ খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকা। উন্নত অন্ত্রের স্বাস্থ্য থেকে শুরু করে ওজন কমানো পর্যন্ত, ফাস্টিং এর সম্ভাব্য সুবিধাগুলো খুব আকর্ষনীয় বলে মনে হতে পারে। কারন এটি কম ক্যালোরি গ্রহন নিশ্চিত করে। ২০১৯ সালে ইন্টারনেটে সবচেয়ে বেশিবার সার্চ করা শব্দের মধ্যে ইন্টারমিটেন্ট ফাস্টিং ছিল সাবার উপরে। এই ইন্টারমিটেন্ট ফাস্টিং এ খাবারের ক্ষেত্রে কোন বিধি-নিষেধ না থাকলেও তা গ্রহনের সময়সীমার উপর সীমাবদ্ধতা আছে। বিরতিহীন উপবাস, বিশেষ করে ৫:২ বা ১৬:৮ এর মতো সময়-সীমাবদ্ধ খাওয়া জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। ১৬:৮ হলো আট ঘন্টার মধ্যে খাবার খেয়ে নিতে হবে, বাকি যে সময় অর্থাৎ ১৬ ঘন্টা উপোস করে কাটাতে হবে। আর ৫:২ হলো সপ্তাহে ২ দিন মাঝারি আকারের খাবার খাওয়া যেতে পারে। ওজন কমানো, হৃদরোগের স্বাস্থ্যের পাশাপাশি এতে রক্তচাপও কম থাকে।

শরীরের উপর কেমন প্রভাব ফেলে?

মানব স্বাস্থ্যের উপর এই ফাস্টিং দীর্ঘমেয়াদী যেসব প্রভাব ফেলে তা হল-

অটোফ্যাজি

ফাস্টিং এর সম্ভাব্য সুবিধাগুলোর মধ্যে একটি হল এটি অটোফ্যাজি নামক একটি প্রক্রিয়াকে ট্রিগার করতে পারে। এটি কোষগুলির জন্য এক ধরনের মান নিয়ন্ত্রন হিসাবে কাজ করে। অটোফ্যাজি শরীরকে ভেংগে ফেলার এবং পুরানো কোষের অংশগুলোকে পুনরায় ব্যবহার করতে দেয় যাতে তারা আরও দক্ষতার সাথে কাজ করতে পারে। গবেষকরা সম্ভাব্য রোগ প্রতিরোধ এবং লড়াইয়ে অটোফ্যাজির ভূমিকা অধ্যয়ন করেছেন এবং মতামত দিয়েছেন যে ফাস্টিং অটোফ্যাজিকে উন্নত করতে সক্ষম। নিয়মিত উপবাস শরীরকে রিসেট করতে পারে এবং সেলুলার ধ্বংসাবশেষ পরিষ্কার করে এটিকে আরও দক্ষতার সাথে চালাতে সাহায্য করে।

অন্ত্রের স্বাস্থ্যের উন্নতি

খাদ্যে আমূল পরিবর্তন যেমন ফাস্টিং, অন্ত্রের মাইক্রোবিয়াল মেক-আপকে পরিবর্তন করতে পারে এবন অন্ত্রের ব্যাকটেরিয়া যা করছে তা পরিবর্তন করতে পারে। গবেষকদের মতে, কিছু ধরনের উপবাস অন্ত্রের মাইক্রোবায়োমের জন্য উপকারী হতে পারে, যা উন্নত বিপাকীয় স্বাস্থ্য, ক্যান্সারের ঝুঁকি, হৃদরোগ এবং স্থূলতার ঝুঁকি হ্রাস করা সহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য সুবিধার সাথে যুক্ত।

সুস্থ হার্ট এবং রক্তে শর্করার নিয়ন্ত্রন

উপবাস হরমোন ইনসুলিনের প্রতি শরীরের প্রতিক্রিয়াও উন্নতি করতে পারে, যা রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রন করে। রক্তে যখন শর্করা নিয়ন্ত্রিত হয় তখন এটি ওজন বৃদ্ধি এবং ডায়াবেটিসের ঝুঁকি হ্রাস করে। যা কার্ডিওভাসকুলার রোগ এবং অন্যান্য হার্ট সম্পর্কিত স্বাস্থ্য সমস্যার জন্য ঝুঁকির কারন। এছাড়াও বিরতিহীন উপবাস নিম্ন-ঘনত্বের লিপোপ্রোটিন বা খারাপ কোলেস্টেরল কমানোর পাশাপাশি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রনে ইতিবাচক প্রভাব ফেলে এবন প্রদাহ হ্রাস করে।

ওজন কমানো

এটির তুমুল জনপ্রিয়তার মূলে রয়েছে এর ওজন কমানোর ক্ষমতার জন্য। এটি সম্ভাব্য কিছু লোককে স্বল্প-মেয়াদে ওজন কমাতে সাহায্য করতে পারে। একটি পরীক্ষায় দেখা গেছে যে, বিরিতিহীন উপবাসের ফলে ওজন কমেছে, বেসলাইন শরীরের ওজনের ০.৮% থেকে ১৩.০% পর্যন্ত।

ইন্টারমিটেন্ট ফাস্টিং এর পার্শপ্রতিক্রিয়া

এই ধরনের ফাস্টিং সবার জন্য কিন্তু প্রযোজ্য নয়। একজন সুস্থ স্বাভাবিক মানুষের জন্য খুব সামান্যই পার্শপ্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। যেমন অলসতা, খিটখিটে মেজাজ এবং মাথাব্যথা। যাদের এই ধরনের ফাস্টিং থেকে বিরত থাকা উচিৎ-

-গর্ভবতী নারী এবং স্তন্যদাত্রী নারী

-অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার চেষ্টা করছে যারা

-টাইপ ১ ডায়াবেটিস আছে যাদের

-খাবারের সাথে ঔষধ খেতে হয় যাদের

-শিশু এবং বয়স্ক

-স্বাভাবিকের চেয়ে যাদের ওজন কম

ফাস্টিং শরীরের জন্য ভালো এটা যেমন ঠিক, তেমনি ইন্টারমিটেন্ট ফাস্টিং যে সবার জন্য প্রযোজ্য হবে তা কিন্তু নয়। তাই স্রোতের জোয়ারে গা না ভাসিয়ে যাদের শারীরিক সমস্যা আছে তাদের যে কোন ডায়েট অনুসরণ করার আগেই বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেয়া উচিৎ। আগামী দিনে ভালোভাবে চলার জন্য সুস্বাস্থ্য অবশ্যই কাম্য।

০ মন্তব্য করো
0

You may also like

তোমার মন্তব্য লেখো

fourteen − six =