কেন হয় ব্রেস্ট ক্যান্সার?

করেছে Rodoshee Magazine

নির্দিষ্ট কোন কারণ দেখাতে পারেননি গবেষক বা চিকিৎসকরা। এক নয় একাধিক কারণের কথা বলছেন তারা। জার্মানিতে বসবাসকারী নারী বিশেষজ্ঞ ড. শুভ্রা কুন্ডু জানিয়েছেন, নির্দিষ্ট কোনো কারণ এখনও জানা না গেলেও, একাধিক কারণে স্তন ক্যান্সার হতে পারে৷ এই যেমন-

১. একাধারে অনেক দিন ধরে জন্ম নিরোধ বড়ি খেলে

২.মাসিক বন্ধ হওয়ার পরপরই নানা রকম হরমন নেওয়া শুরু করলে অথবা ‘রিক্স ফ্যাক্টর’ – যেমন মা বা মাসির মধ্যে কারুর স্তন ক্যান্সার থাকলে

৩.  অবিবাহিতা বা সন্তানহীনা মহিলা – মানে যারা কখনো সন্তানকে স্তন্য পান করান নি – তাদের ব্রেস্ট ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি অন্যদের তুলনায় বেশি হয়৷

প্রয়োজন সতর্কতা অবলম্বন

*২০ বছর বয়স থেকে নিয়মিত ব্রেস্ট পরীক্ষা করাতে হবে

*৩০ বছর বয়সের মধ্যেই প্রথম সন্তানের জন্ম দেওয়া

* সন্তানকে বুকের দুধ পান করানো

*ছোট থেকেই টাটকা শাক-সবজি ও ফল খাওয়া

* ধূমপান এবং মদ্যপান পরিহার করা এবং সন্দেহ হলে সঙ্গে সঙ্গেই কোনো ক্যান্সার সার্জন বা ‘অঙ্কোলজিস্ট’-এর শরণাপন্ন হওয়া অত্যন্ত জরুরি৷

প্রাথমিক পর্যায়ে রোগ নির্ণয়ের কোনো বিকল্প নেই৷ বিকল্প নেই সচেতনতারও৷

তথ্যসূত্র : ডয়চে ভেলে

রোদসী/আরএস

 

০ মন্তব্য করো
0

You may also like

তোমার মন্তব্য লেখো

fourteen − 13 =