খেলাচ্ছলেই ব্যায়াম

করেছে Tania Akter

রেহনুমা তারান্নুম

 

মুটিয়ে যাওয়ার পর একটা সময় সবাই ভাবে, না! এখন থেকে ব্যায়াম করতেই হবে। কিন্তু সেই সময়টি যেন আর হয়ে ওঠে না। অনেকে মনে করে, ব্যায়ামের এত প্রস্তুতি, থাক কদিন যাক। তবে ব্যায়াম যদি হয় খেলাচ্ছলে। তাহলে কিন্তু মন্দ হয় না ! সহজ, চেনা কিছু শারীরিক কসরতে, প্রায় খেলাচ্ছলেই শরীর আবার ফিরে পাবে আগের মতো যথাযথ আকার। বিগত ১২ মাসের লাভ-ক্ষতির অঙ্ক করতে বসে যদি দেখো বেশ কিছুটা মেদ শরীরে জমেছে, তবে মোটেই মেজাজ থাকবে না আর। তা ছাড়া অতিমারির জন্য অনেকটা সময় বাড়িতে থেকে কাজ করতে হয়েছে।

 

বাইরে নিয়মিত গেলে যে শারীরিক পরিশ্রমটা হয় সেটাও হয়নি। খাবারেও হয়েছে বড়সড় অনিয়ম। ফলে ছিপছিপে শরীরে ক্যালরি বেড়ে যদি নিজেকে বেঢপ মনে করো, তবে হাতের কাছেই আছে সমস্যার সমাধানও। সহজ, চেনা কিছু শারীরিক কসরতে, প্রায় খেলাচ্ছলেই দেহ আবার ফিরে পাবে আগের মতো যথাযথ আকার, কমবে ক্যালরি, উপরন্তু বাড়বে দেহের রোগ প্রতিরোধক্ষমতা।

 

সাইক্লিং

সাইকেল চালানো তোমার হাঁটুকে শক্তিশালী করার জন্য দুর্দান্ত একটি ব্যায়াম। বিশেষ করে তোমার যদি দৌড়ানোর সঙ্গে সঙ্গেই হাঁটুতে ব্যথা হয় বা অতিরিক্ত মেদের ফলে হাঁটুতে চাপ পড়ে, তবে সাইকেল চালালে পেতে পারো প্রভূত উপকার। বহু জিমেও তাই এই ধরনের যন্ত্রের সাহায্যে শরীরচর্চা করানো হয় এখন। ক্যালরি বর্জন করতে ছোটবেলার এই খেলা আমাদের অনেকটা সাহায্য করতে পারে। ক্যালরি বর্জন করতে ছোটবেলার এই খেলা আমাদের অনেকটা সাহায্য করতে পারে।

 

জগিং

রোজ নিয়ম করে কিছুক্ষণ জগিং করলে শরীরে মেদ জমার সুযোগই পাবে না। এতে খুব দ্রুত সারা দেহে রক্ত সঞ্চালন হয় আর ক্যালরিও ঝরে যায়। প্রত্যেক দিন সময় না পেলে সপ্তাহে অন্তত তিন দিন নিয়ম করে খানিকক্ষণ জগিং করতে হবে। সঙ্গে অবশ্য ভাজাভুজি বাদ রেখে সুষম খাদ্য খাওয়াও জরুরি।

 

সাঁতার

আমরা একটু সচেতন হয়ে খেয়াল করলে দেখব যে যারা নিয়মিত সাঁতার কাটে, তাদের শরীরে মেদের আধিক্য প্রায় নেই। জলে ভেসে থাকতে গেলে ওজনদার আকৃতি নিয়ে কিন্তু মুশকিলই হয়। তা ছাড়া সাঁতারের সময় শরীরের প্রত্যেক অঙ্গের ব্যায়াম বিশেষজ্ঞদের মতো এমনটাই। শীতকালে ঠান্ডার ভয়ে পানিতে নামতে না চাইলে এমন সুইমিংপুলের সন্ধান করতে পারো, যেখানে পুলের পানিতে থাকে নাতিশীতোষ্ণ।

 

দড়ি লাফানো

দড়ি লাফানো বা আরেকটু চেনা ভাষায় বললে লাফদড়ি খেলার সঙ্গে আমরা সবাই কমবেশি পরিচিত। কিন্তু অনেকেই জানি না যে ক্যালরি বর্জন করতে ছোটবেলার এই খেলা আমাদের কতখানি কাজে লাগতে পারে। ঘণ্টায় ৬০০ থেকে প্রায় ৯০০ ক্যালরি শরীর থেকে বাদ দিয়ে দিতে সক্ষম এই কসরতটি। তা ছাড়া এটি হাড়ের ঘনত্ব তৈরি করতে সাহায্য করে, যা হাড়ের ক্ষয় বা অস্টিওপোরোসিসের মতো রোগ প্রতিরোধে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

 

লিফটের পরিবর্তে সিঁড়ি

সবচেয়ে সহজ যে উপায়ে ওজন কমতে পারে তা হলো সিঁড়ি দিয়ে ওঠানামা। অনেকে একে শরীরচর্চার অঙ্গ হিসেবে ধরতে চায় না। কিন্তু যারা কোনো না কোনো বহুতলে থাকে কিংবা চাকরিসূত্রে যাতায়াত করে, তারা খুব ভালো জানে লিফট না চললে সিঁড়ি ব্যবহার করার সময়ে কতখানি ধকল যায়। মেদ কমার পাশাপাশি এভাবে পায়ের পেশি শক্ত হয়, আঙুলের যন্ত্রণা কমে, নিঃশ্বাসের ব্যায়াম হয় এবং কোমরের পেশিতে রক্ত সঞ্চালন হয় যথাযথভাবে।

ছবি: সংগৃহীত

 

০ মন্তব্য করো
0

You may also like

তোমার মন্তব্য লেখো

5 × four =