ঘর সাজুক বোহেমিয়ান ঢংগে

করেছে Shaila Hasan

শায়লা জাহান

ইট-কাঠ-পাথর দিয়ে ঘেরা ঘরকে মনের মত করে সাজাতে আমাদের কত প্রানান্তকর চেষ্টা। একটু ভিন্ন আঙ্গিকে, ভিন্ন লুক দিতে অনেক কিছুরই এক্সপেরিমেন্ট চলে। সিম্পল কিন্তু সফিস্টিকেটেড লুক দিতে দিনের পর দিন বোহেমিয়ান স্টাইল বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।  

ইন্টেরিয়র ডিজাইনে বোহেমিয়ান স্টাইল ১৯ শতকে ফ্রান্সের প্যারিসে শুরু হয়েছিল। এটি শিল্পী, লেখক অভিনয়শিল্পী এবং যাযাবরদের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়েছিল ,যারা বিশ্বাস করত যে সৃজনশীলতা অর্থের চেয়ে বেশি মূল্যবান। চেক প্রজাতন্ত্রের পশ্চিমাঞ্চলের একটা জায়গা বোহেমিয়া। যে অঞ্চলের মানুষেরা নিজেদের নিয়মে জীবন যাপন করে, গতানুগতিক নিয়মের বেড়াজালে নিজেদের আবদ্ধ রাখেনা। তাদের জীবনযাত্রার সাথে আমরা যে অর্থে বোহেমিয়ান শব্দটি ব্যবহার করি তার কোন মিল না থাকলেও, ঘরের সাজসজ্জায় প্রচলিত নিয়ম না মেনে পুরোপুরি মুক্ত, খেয়ালখুশি ধারনা গ্রহন করার কারনেই এর নাম এমন দেয়া হয়েছে। এখানে নির্দিষ্ট কোন প্যাটার্ন, টেক্সচার বা রঙয়ের ব্যবহার হয়নি। নেই আধুনিক বা মিনিমালিস্টের মত কঠিন কোন নিয়ম। এর নান্দনিকতার মূল হল ব্যক্তিগত এবং স্বাচ্ছন্দ্যময়। এখন এমন কিছু আইটেমের কথা বলব যা এই বোহেমিয়ান সজ্জার সাথে উপযুক্ত-

-একটি চমৎকার বেতের ডিম্বাকৃতির চেয়ার ঘরে এক কোজি লুক এনে দেয়। বই পড়া বা অলস সময় কাটানোর জন্য এটা খুবই আরামদায়ক। চেয়ারের চারপাশে স্ট্রিং লাইট লাগিয়ে দিলে আরো কুল ও স্ট্যারি-নাইট ইফেক্ট যোগ করবে

-মসৃণ, নন-স্লিপি এবং সিম্পল প্যাটার্নের বাথরুম রাগ যা ধোয়াযোগ্য, টেকসই। এটি শুধু বাথরুমেই নয় রান্নাঘর ও প্রবেশপথেও সুন্দর দেখাবে।

-চামড়ার হাতল সহ সুন্দর ঝুলন্ত ঝুড়ি যা মাল্টিটাস্কিং সজ্জা হিসেবে চমৎকার। এগুলো কাগজপত্র রাখতে, অর্গানাইজার হিসেবে অথবা ছোট গাছের প্ল্যান্টার হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে।

-বোহেমিয়ান সজ্জায় ম্যাক্রমের ব্যাপক ব্যবহার লক্ষ্য করা যায়। সোফা, বিছানা বা হলে খালি জায়গায় ম্যাক্রমের ওয়াল হ্যাংগিং নতুন লুক সংযোজন করে।

-বোহেমিয়ান সজ্জায় ঘরের ভেতর গাছের আধিক্য বেশ দেখতে পাওয়া যায়। আর এই প্ল্যান্টসগুলো ডেকোরের জন্য সুন্দর সুন্দর বেতের প্ল্যান্টার ব্যবহার করা হয়। আর এই প্ল্যান্টার সহযোগে গাছগুলো আরো গর্জিয়াস লুক দেয়।

-ঘরের সৌন্দর্য না নষ্ট করে বড় গাছ ছাড়া অন্যান্য গাছের কাটিংগুলো ছোট ছোট জার দিয়ে তৈরি ঝুলন্ত প্রোপাগ্যাশন প্রাচীরে সাজানো যায়। যা এক এস্থেটিক লুক দেয়।

-ঘরকে একটি আধুনিক অথচ বোহেমিয়ান লুক এনে দেয় ফক্স পাম্পাস গ্রাস। এই চমৎকার ডালপালাগুলো ঘরের যে কোন স্থানকে উন্নত করার একটি সহজ উপায়। শুধু মাত্র লম্বা যে কোন ফুলদানি রেখে দিলেই কেল্লাফতে। এটি আপন সৌন্দর্যে শোভিত হবে।

-চকচকে ক্রিস্টালের ঝাড়বাতির পরিবর্তে হাতে বোনা বেতের হাংগিং ল্যাম্প যা নিখুঁত বোহেমিয়ান ঝাড়বাতির ইফেক্ট তৈরি করবে। এটি ডাইনিং টেবিল বা শোবার ঘরে এড করা যেতে পারে।

-সুন্দর ম্যাক্রেম ঝুলন্ত ঝুড়ি, যা ফল স্টোরেজ করতে, বিউটি প্রোডাক্টস বা গাছপালা সংরক্ষনের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে।

-বাথরুম,বেডরুম বা রান্নাঘরের সাজসজ্জার জন্য একটি ম্যাক্রেম ঝুলন্ত শেলফ । এই সুন্দর শেলফটি প্রমান করে যে ঘরের প্রতিটি ইঞ্চিতে একটি বোহো থিম থাকতে পারে যদি তুমি চাও।

-কাউচ, বিছানা বা চেয়ারে কিছু কালার যোগ করতে চাইলে ব্যবহার করা যেতে পারে মখমলের কুশন কভার। বোহো স্টাইলে কোন ধরাবাঁধা রঙ বা প্যাটার্ন মানা হয়না। তাই ভিন্ন ভিন্ন কালারফুল কুশন কভার একটি দৃষ্টিনন্দন রুপ দেবে।

-ম্যাক্রমের ব্যবহার বোহো সজ্জায় যে কেমন ব্যবহার হয়  তা তো আমরা জানি। একটি মজবুত ম্যাক্রেম হ্যামক সুইং চেয়ার যা ঘরের ভেতর বা বাহিরে উভয়ই ঝুলানো যেতে পারে। প্রিয় বই পড়তে পড়তে দোল খাওয়ার জন্য এর চাইতে ভালো অপশন আর কিছু হতে পারে বলে মনে হয়না।

-ছবি সংগৃহীত

০ মন্তব্য করো
0

You may also like

তোমার মন্তব্য লেখো

1 × 5 =