চোখ সাজাতে লেন্স

করেছে Shaila Hasan

শায়লা জাহান

কথিত আছে, চোখের মাধ্যমে সৌন্দর্য লক্ষ্য করা যায় আর ব্যক্তিত্ব হৃদয় দিয়ে লক্ষ্য করা যায়। পঞ্চ ইন্দ্রিয়ের মধ্যে চোখ অন্যতম। আর এই চোখ একটু সুন্দর ও আকর্ষনীয় করতে যে উপকরণগুলোর প্রয়োজন লেন্সের ব্যবহার তাদের মধ্যে অন্যতম।

চোখ হল মনের আয়না। মানুষ তার ভিতরকার অনুভূতিগুলোকেও প্রকাশ করে এই চোখের মাধ্যমে। বাঙ্গালি মেয়েদের চোখ স্বভাবতই মায়াকাড়া। সামান্য কাজল ছড়ানো চোখ দিয়ে এই অঞ্চলের মেয়েরা দুনিয়া জয় করেছে। কখনোবা এই চোখকে ডাগর চোখ আবার কখনোবা হরিণী চোখের সাথে তুলনা করা হয়েছে। তবে যেমনই হোক সাজ-সজ্জার ক্ষেত্রে চোখ সাজানো বরাবরই প্রাধান্য পেয়ে এসেছে। আর সময়ের সাথে সাথে এই চোখের সাজেও এসেছে নানান ফিউশন। আই প্রাইমার, আই-শ্যাডো, আই লাইনার, মাসকারা দিয়ে চোখে ন্যাচারাল, স্মোকি বা গ্লিটারি ভাব আনা যায়। কিন্তু মুখকে সম্পুর্ন অন্যরকম লুক দিতে এবং চোখকে আরো একটু আকর্ষনীয় করে তুলতে ভিন্ন রঙ্গের লেন্সের জুড়ি মেলা ভার।

                                                                         

শুধু চোখের সমস্যায় নয় ফ্যাশন এক্সেসরিজ হিসেবে গত কয়েকবছর ধরে লেন্সের ব্যবহার তরুন প্রজন্মের কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। একটা মিনিমাল মেকআপ নিয়ে শুধুমাত্র কন্ট্যাক্ট লেন্স দিয়ে চেহারায় ব্যাপক পরিবর্তন আনা যায়। কনের সাজ থেকে শুরু করে ঘরোয়া অনুষ্ঠানের সাজেও এর ব্যবহার বেড়েছে। পরিবেশ এবং পারিপার্শ্বিক অবস্থার উপর নির্ভর করে ভিন্ন ভিন্ন রঙের লেন্স ব্যবহার জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।  নীল, ধুসর, বাদামী, হালকা বেগুনি এমন অনেক বাহারি রঙের লেন্সের ব্যবহার দেখতে পাওয়া যায়

সাধারনত কন্ট্যাক্ট লেন্সগুলো খুব পাতলা ধরনের স্বচ্ছ প্লাস্টিক থেকে তৈরি করা হয়। লেন্সের মধ্যে অনেক ধরন রয়েছে। ডিসপোজেবল লেন্স বর্তমানে বেশি ব্যবহৃত হচ্ছে। এটি সফট এবং চলেও এক সপ্তাহ থেকে এক মাস। তবে লেন্স ব্যবহারের সময় কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে-

  • মেকআপ শুরু করার আগেই লেন্স পরে নিতে হবে।
  • হাত দুটোকে ভালোভাবে ক্লিয়ার করে নিতে হবে। হাত ক্লিয়ার না থাকলে ময়লা চোখের সংস্পর্শে এসে জ্বালা পোড়া সৃষ্টি করতে পারে।
  • লেন্স পড়ার আগে সল্যুশনের সাহায্যে ভালোভাবে ভিজিয়ে নিতে হবে।
  • সর্বোচ্চ ৮-১০ ঘন্টার বেশি এটা পড়াই ভালো।
  • ডান ও বাম দিকের লেন্স যাতে বদল না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।
  • লেন্স খুলে ফেলার পর সাথে সাথে কৌটার সল্যুশনে ডুবিয়ে রাখতে হবে।
  • কেনার আগে উৎপাদনের তারিখ ও মেয়াদ শেষ হওয়ার তারিখ দেখে নেয়া উচিৎ।
  • লেন্স পরে কখনোই কড়া রোদ অথবা তাপে না যাওয়াই ভালো।

প্রয়োজনেই হোক অথবা সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্যই হোক লেন্স ব্যবহারের কিছু ঝুঁকিও রয়েছে। আর সবচেয়ে বড় ঝুঁকি হল সংক্রমণ। ব্যাকটেরিয়া এবং অন্যান্য জীবাণুর উপস্থিতিতে এই সংক্রমণ হতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে প্রায় ৪৫ ভাগ ব্যবহারকারী লেন্স খোলার আগে ও পরে হাত ধুয়ে নেয় না। এছাড়াও স্বল্প মেয়াদী লেন্স বেশি সময় ধরে ব্যবহার করেন অনেকেই। এজন্য সকলেরই সতর্কতা মেনে চলে ভালো ব্র্যান্ডের লেন্স কেনা উচিৎ এবং ব্যবহারের কারনে যদি চোখ  লালচে বা জ্বালাপোড়া করে তবে অনতবিলম্বে ডক্টরের পরামর্শ নিতে হবে।

-ছবি সংগৃহীত

০ মন্তব্য করো
0

You may also like

তোমার মন্তব্য লেখো

19 + 12 =