নারী দিবসে রোদসীর প্রাণবন্ত আয়োজন

করেছে Suraiya Naznin

সুরাইয়া নাজনীন:

নারীর গন্তব্য কোন দিবসে নয়। কিন্তু নারী দিবস বার বার মনে করিয়ে দেয়, নারী তুমি মশাল ছেড়ো না। তোমার পথ হোক প্রজ্জ্বলিত। তোমার কাজ হোক এক একটি উদাহরণ।

নারীর ছুটে চলা পথে আলোর শিখা জ্বালাতে রোদসী সবসময় প্রত্যয়ী। এবার নারী দিবসে রোদসীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হলো কতিপয় অনুপ্রেরণাদায়ক নারীদের মিলন মেলা, সেখানে পুরুষরা ছিলেন না, তা নয়। শিল্পের জগতে বিচরন করা পুরুষরা তাদের মূল্যবান বক্তব্যের মাধ্যমে রোদসীর সঙ্গে এক সুরে কথা বলেছেন।

 

নারী দিবসের এই প্রাণবন্ত আয়োজনে রোদসীর সম্পাদক সাবিনা ইয়াসমীন বলেন, আমি শুধু বলতে চাই ‌আমি নারী, আমিও পারি’। আমাদের শুধু এইটুকু প্রমানের সুযোগ দিতে হবে। আমরা অধিকার চাই না, সমযোগ্যতায় এগিয়ে আসতে চাই। যদি ইতিহাসে ফিরে যাই তাহলে দেখা যাবে নারীর ভূমিকা যুগে যুগে ছিল, থাকবে। পৃথিবীর সূচনা নারীর কারনেই। নারী ছাড়া ভাবার কোন অবকাশ নেই, তবে মূল্যায়ণ ও সঠিক সুযোগের জায়গাগুলোকে আরও মসৃন করতে হবে।’

রোদসীর সম্পাদক সাবিনা ইয়াসমীনের বক্তব্য

রোদসীর আড্ডা আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন, নারী উদ্যােক্তা গড়ার কারিগর নাজমা মাসুদ, ইন্টেরিওর ডিজাইনার গুলসান নাসরিন চৌধুরী, ল্যান্ডস্কেপ ডিজাইনার রাফেয়া আবেদীন, পর্যটন শিল্পের অন্যতম উদ্যোক্তা আজিজা সেলিম আলো, বিউটি এক্সপার্ট আফরোজা পারভীন, রন্ধনশিল্পী আফরোজা নাজনীন সুমী, মাছরাঙা টিভির প্রোগ্রাম প্রডিউসার নাহিন শফিক, চিকিৎসক নওশিন নিশা, চিত্রশিল্পী নুসরাত জাহান, গীতিকার লায়লা নাজনীন হারুন, কথাসাহিত্যিক ইসহাক খান, কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন কবীর ঢালীসহ আরও গুনীজনেরা উপস্থিত ছিলেন।

রোদসী টিম

অনুষ্ঠানকে আর একটু শ্রুতিমধুর করতে গান পরিবেশন করেন লায়লা নাজনীন হারুন ও তিথী। সঞ্চালনা করেন রোদসীর উপসম্পাদক রওশনয়ারা জামান মিলি।

আয়োজনে ছিল মোমবাতি প্রজ্জ্বলন, ফুলেল সম্বর্ধনা, রাখি বাধন।

ছবি: ওমর ফারুক টিটু

০ মন্তব্য করো
0

You may also like

তোমার মন্তব্য লেখো

ten + five =