বিয়ে আগে যা জানা জরুরী

করেছে Tania Akter

রোদসী ডেস্ক

বিয়ে খুবই স্পর্শকাতর একটি সম্পর্ক। তাই দাম্পত্য কলহ এড়াতে কিংবা বিবাহ বিচ্ছেদের সম্ভাবনা কমে যায় যদি বিয়ের আগে অভিভাবক ও পাত্র-পাত্রীর জরুরী কিছু বিষয় জেনে নেয়-

প্রাপ্ত বয়স্ক হওয়া
প্রথমেই পাত্র-পাত্রীর বয়স রাষ্ট্রীয় আইনুসারের বৈধ কি না সে সম্পর্কে জেনে নিতে হবে। তা না হলে আইনগতভাবে হেনস্থা হওয়ার পাশাপাশি সামাজিকভাবেও অপদস্ত হতে হবে।

কততম বিয়ে
বিয়ে মানেই প্রথম বিয়ে এমন নয়। পাত্র বা পাত্রীর এটা প্রথম বা কততম বিয়ে এই বিষয়ে সঠিক তথ্য রাখতে হবে। এছাড়া পাত্রের কততম স্ত্রী বর্তমান থাকাবস্থায় এই বিয়ে হতে যাচ্ছে। পাত্রের একাধিক বিয়ে হলে আগের স্ত্রীর অনুমতি আছে কি না কিংবা পাত্রীর বিয়েটা এখনও বিদ্যমান আছে কিনা জেনে নিতে হবে। এছাড়া পাত্রী বিধবা কিংবা তালাকপ্রাপ্ত হলেও তা জানা উচিত। পাত্রীর আগের স্বামীর ঔরসজাত সন্তান থাকলে তার দায়িত্ব কিংবা পাত্রের আগের স্ত্রীর সন্তান নিয়েও দুজনেরই স্পষ্ট বক্তব্য থাকা উচিত।

 

একা নাকি একান্নবর্তী পরিবার
বিয়ের পর সঙ্গী একা থাকবে নাকি পরিবারের সাথে থাকবে সে বিষয়ে জেনে নিতে হবে। তা না হলে পরিবারের সবার সাথে সম্পর্ক খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে যা খুবই বিব্রতকর।

আর্থিক বিষয়ে স্পষ্ট জ্ঞান
ভবিষ্যত জীবনে চলার পথের গুরুত্বপূর্ণ হলো দুজনের এবং দুই পরিবারের আর্থিক বিষয় সম্পর্কে জানা জরুরী। এছাড়াও নিজেদের খরচের অভ্যাস সম্পর্কে জানাও প্রয়োজন। এছাড়াও দুইজনের কারও কোন ধরনের ঋণ কিংবা ব্যাংক লোন আছে কিনা সেটাও সঙ্গীর সঙ্গে খোলাখুলি আলাপ করে নিলে দুজন দুজনকে সহায়তার পাশাপাশি অবাঞ্চিত দাম্পত্য কলহ এড়ানো যাবে।

সন্তান গ্রহণ সম্পর্কে মতামত
বিয়ের পর সন্তান নেয়ার ইচ্ছে আছে কিনা এ বিষয়ে সঙ্গীর মতামত জানা জরুরি। যদি সন্তান গ্রহণের ইচ্ছা থাকে তাহলে কখন এবং সন্তানের সংখ্যা জেনে নিতে হবে। ছেলে সন্তান নিয়ে কতটা আগ্রহী কিংবা সহবসেসঙ্গীর ইচ্ছার উপর গুরুত্ব দেয়া হবে কি না এসব বিষয়ে খোলাখুলিভাবে আলোচনা করে নিলে দাম্পত্য জীবন ভালোভাবে এগিয়ে নেয়া সহজ হবে।

 

জীবনকে সুন্দরভাবে এগিয়ে নিতে পাত্র এবং পাত্রীর সম্পর্কে জড়ানোর পূর্বমুহূর্তেই জরুরী বিষয়গুলো নিয়ে সংকোচ নয় খোলামেলা আলোচনায় সঠিক তথ্য জানিয়ে দিলে দাম্পত্যজীবন হবে উপভোগের এবং পরবর্তী প্রজন্ম থাকবে নিশ্চিন্ত।

০ মন্তব্য করো
0

You may also like

তোমার মন্তব্য লেখো

15 − fourteen =