লম্বা ও স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের ভিটামিন

করেছে Sabiha Zaman

সাবিহা জামান: সব মেয়েরই স্বপ্ন থাকে লম্বা ঘন ও স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের। আর এজন্য আমরা প্রতিদিন ব্যবহার করছি নানান কেমিক্যালযুক্ত পণ্য আমাদের চুলে এছাড়া ব্যবহার করছে বিভিন্ন ধরনের হেয়ার প্রোডাক্ট। খুব সুন্দর করতে আমরা কখনো করছি রিবন্ডিং কখনো করছি চুল কালার বাসায় হেয়ার স্ট্রেইটনার মেশিন থাকলেতো স্টেট করা কোনো বিষয়ই না। কিন্তু এসব করতে গিয়ে আমরা ভুলে যাই আমরা চুল সুন্দর করার বদলে ভেতর থেকে আমাদের চুলের ক্ষতি করছি। আমাদের চলছে আমাদের শরীরের অংশ। আমাদের শারীরিক সুস্থতার প্রভাব পড়তে থাকে আমাদের চুলেও। লম্বা ঘন ও স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের জন্য খাদ্য তালিকায় রাখা প্রয়োজন প্রয়োজনীয় কিছু ভিটামিন। তোমার খাদ্যতালিকায় সেসকল ভিটামিন রয়েছে কিনা চোখ বুলিয়ে না আজকে লেখাটি পড়ে।

ভিটামিন এ
চুলের কোষের পুষ্টি যুগিয়ে ভিটামিন এ চুল তাড়াতাড়ি লম্বা করতে সাহায্য করে। ভিটামিন এ স্ক্যাল্পের পুষ্টির জন্য জরুরি সিবাম তৈরিতেও কাজ করে। যদি কেউ ভিটামিন এ-র অল্পতায় ভোগেন, তাহলে তার ঝরে যাবে শুকনো পাতার মতো। তাই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় যুক্ত করো ভিটামিন এ। গাজর, পালং শাক, ব্রকোলি, যে-কোনও সবুজ শাকপাতা, কমলালেবু, ডিম, দই, দুধ, এই ধরনের খাবারে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ পাওয়া যায়।

ভিটামিন বি ১২
শরীরে লোহিত রক্তকণিকা তৈরি করে ভিটামিন বি ১২ আমাদের স্ক্যাল্প ও মস্তিষ্কে অক্সিজেন পৌঁছে দেয়। তাই এটির অভাবে চুল পড়ার মতো সমস্যা পিছু নিতে পারে। এই ভিটামিনের অভাবে চুল অনেক সময় ফেটে যায়। মাংস, মাশরুম, টুনা, লো ফ্যাট দই এবং কর্নফ্লেক্স, মুয়েসলি জাতীয় তৈরি সিরিয়ালে এই ভিটামিনটি পাওয়া যায়।


ভিটামিন ই
স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের জন্য ভিটামিন ই খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান। চুলের রুক্ষতা ও শুষ্ক ভাব কমিয়ে চুলের ঔজ্জ্বল্য বাড়িয়ে দেয় এটি। ভিটামিন ই তে রয়েছে আছে নানা ধরনের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট প্রপার্টিজ, যা চুলকে ক্ষতিকর ইউভি রশ্মির হাত থেকেও বাঁচায়। ভেজিটেবিল অয়েল, সবুজ শাকসবজি, শুকনো খোলায় ভাজা আমন্ড, পিনাট বাটার ইত্য়াদিতে আছে এই ভিটামিনটি।

ভিটামিন সি
চুল পড়লে অথবা চুলের সমস্যার জন্য অনেকেই দেখবে ভিটামিন সি জাতীয় খাবার খেতে বলে। এই ভিটামিনটি আমাদের শরীরে কোলাজেন তৈরি করে। আর কোলাজেন আমাদের স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের জন্য ভূমিকা রাখে। তাই এখনই খাদ্যতালিকা যুক্ত করো ভিটামিন সি। যেকোন লেবুজাতীয় খাবারেই প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে , তা সে মৌসম্বি থেকে শুরু করে পাতিলেবু, যা-ই হোক না কেন! কিউয়ি, কমলালেবু, স্কোয়াশ, এই ফলগুলিতে ভিটামিন সি-এর পরিমাণ সর্বাধিক। তাই ডায়েটে এই ফল রোজ অন্তত একটি করে রাখবে।

ভিটামিন ডি
আমাদের শরীরে ভিটামিন ডি এর ভূমিকা ব্যপক। বিশেষ করে আমাদের চুলে। চুলের ফলিকল চাঙ্গা করে ভিটামিন ডি যেটি হেয়ার গ্রোথে সাহায্য করে। ভিটামিন ডি-সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া শুরু করলে বুঝবে চুল পড়া কমে আসছে। দানাশস্য, রাগি, কমলালেবু, দুধ, ডিমের কুসুম, কড লিভার অয়েল, স্যামন, টুনা ইত্যাদি খাবারে ভিটামিন ডি আছে।

ছবি: সংগৃহীত

 

 

০ মন্তব্য করো
0

You may also like

তোমার মন্তব্য লেখো

one + nine =