সালাদ তাজা রাখার উপায়

করেছে Shaila Hasan

শায়লা জাহানঃ

সালাদ স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারী তা বলার আর অপেক্ষা রাখেনা। দেহ ফিট রাখার পাশাপাশি ত্বক ভেতর থেকে উজ্জ্বল রাখতে এর উপকারিতা অনস্বীকার্য। পুষ্টিকর, মসৃণ এবং তাজা সবজীর সমারোহে এক বাটি সালাদ নিজেদের পাতে পেতে কেনা চায়? কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত দেখা যায় যে, সালাদ তৈরীর জন্য সবজীর প্রয়োজন দেখা দেয় সেগুলোর সতেজতা অনেকক্ষণ ব্যাপী থাকেনা। কখনও খেয়াল করে দেখেছো কি কীভাবে প্রো শেফরা তাদের সবজী সতেজ রাখতে পারে? সালাদ তথা শাকসবজি সংরক্ষণ করার কিছু টিপস শেয়ার করা হলো যাতে তারা বেশি সময় ধরে ফ্রেশ থাকতে পারে।

-তুমি যদি প্রথমেই গোড়ায় হালকা পচন ধরা সবজীর কোন বান্ডিল নির্বাচন করে নাও তবে শুরুতেই তোমার সবকিছু পণ্ডশ্রমে পরিণত হবে। তাই যখনই এমন কিছু কেনাকেটা করতে যাবে, তা হোক কোন লেটুস অথবা মিক্সড সালাদ ব্যাগ; ভালোভাবে পরীক্ষা করে বেস্টটি নির্বাচন করে নাও।

-সবুজ শাকসবজি আবদ্ধ থাকা অবস্থায় আর্দ্রতার সৃষ্টি করে, ফলশ্রুতিতে এটি দ্রুত সতেজতা হারিয়ে ফেলে। এক্ষেত্রে তোমার সবজীর ব্যাগের সাথে কাগজের টাওয়ালে জড়িয়ে রাখা প্রাথমিকভাবে একটি অপরিহার্য সালাদ সংরক্ষণের কৌশল হিসেবে সম্মত। এই সহজ পদক্ষেপটি আর্দ্রতা দূর করতে এবং নষ্ট হওয়া প্রতিরোধে সহায়তা করে।

-সালাদ তৈরীতে লেটুস অনেক ব্যবহৃত হয়। লেটুসের আয়ু বাড়ানোর মূল চাবিকাঠি হল প্রথমে অতিরিক্ত আর্দ্রতা দূর করা এবং তারপরে শুকিয়ে রাখা। তাই যখনই এগুলো কিনে আনা হয় তা প্যাকেজিং থেকে সরিয়ে সালাদ স্পিনারের মধ্যে ঘুরিয়ে নাও। অথবা কিচেন টাওয়াল দিয়ে চেপে চেপে এর গায়ের অতিরিক্ত আর্দ্রতা মুছে শুকিয়ে রাখতে হবে। তারপর তা বায়ুরোধী প্লাস্টিকের স্টোরেজ কন্টেইনারে সংরক্ষণ করতে হবে।

-ফল এবং শাকসবজি ফ্রিজের নির্দেশিত নীচের ড্রয়ারে রাখো কারণ এগুলো আসলে গ্যাস এবং আর্দ্রতা ছেড়ে দেওয়ার জন্য ডিজাইন করা হয়েছে যা নষ্ট হওয়াকে ত্বরান্বিত করে। ধ্বংসাত্মক ইথিলিনকে পালানোর অনুমতি দেয়ার জন্য উচ্চ আর্দ্রতা নির্বাচন করো।

-খাবার পরিবেশনের আগেই যদি সালাদ ড্রেসিং করে তৈরি করে রেখে দাও তবে তা এর জীবনকালকে ছোট করবে নিশ্চিত। এক্ষেত্রে, পরিবেশন করার আগে পর্যন্ত ড্রেসিং আলাদা করে রেখে দাও। আরেকটি বিকল্প হলো, মেসন জারে ড্রেসিংটি একেবারে নীচে স্তরে রাখা, মাঝখানে টপিংস এবং উপরে সবুজ শাক্সবজী রেখে বাটিতে ঢেলে রাখতে পারো এবং পরিবেশনের ঠিক আগে শুধু মিশিয়ে নিলেই হবে।

-বিভিন্ন সালাদের উপকরণগুলোর জীবনকাল বিভিন্ন থাকে। কোনটি দীর্ঘস্থায়ী, কোনটি নয় তা জানতে হবে। বেশিরভাগ সবজি যেমন গাজর, মরিচ, পেঁয়াজ, মূলা, শসা এবং টমেটো এগুলো সংরক্ষণ করা সহজ এবং এগুলোর যোগে অনেকক্ষণ তাজা থাকতে পারে। অন্যদিকে, অ্যাভোকাডো, আপেল এবং অন্যান্য ফল যা কেটে ফেলার পর অতি দ্রুত বাদামী হয়ে যায়; তা সালাদে এড করতে চাইলে অনেক আগে না কেটে সাথে সাথে যোগ করা ভালো।

 

 

০ মন্তব্য করো
0

You may also like

তোমার মন্তব্য লেখো

3 + 9 =